আওয়ামীলীগ বাঙালির অধিকার আদায়ের প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে: ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া

আবদুল আউয়াল জনি, সিটিজি ভয়েস টিভি :

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বেই বাংলfদেশ আওয়ামীলীগ এখন বাঙালির অধিকার আদায়ের প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া।

বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধের নেতৃত্বদাতা দেশের অন্যতম প্রাচীন রাজনৈতিক দল ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ৭০ বছর পূর্তি ও ৭১ বর্ষে পদার্পণ উপলক্ষে কুমিল্লা মিয়া বাজার, চৌদ্দগ্রাম ও কুমিল্লা জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে কুমিল্লা জেলা আওয়ামীলীগ কতৃক আয়োজিত পৃথক ৩টি জনসভায় প্রধান বক্তার বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

এসময় তিনি আরো বলেন, ‘আওয়ামী লীগ মানে সংগ্রামের নাম, আওয়ামী লীগ মানে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনার নাম, আওয়ামী লীগ মানে নতুন দিগন্ত উন্মোচনের নাম। বাঙালি জাতির প্রতিটি মহৎ, শুভ ও কল্যাণকর অর্জনে আওয়ামী লীগের ভূমিকা রয়েছে। জনগণই আওয়ামী লীগের শক্তি। ভবিষ্যতেও আওয়ামী লীগ জনগণকে সঙ্গে নিয়ে জাতির পিতার স্বপ্নের ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত, সুখী-সমৃদ্ধ, উন্নত ও আধুনিক সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠা করবে।

কোনো অশুভ শক্তি এ দেশে বিস্তার লাভ করতে পারবে না উল্লেখ করে ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া বলেন, আমরা মুক্তিযুদ্ধে বিজয়ী জাতি। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি আমাদের ঐতিহ্য। দেশে শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে আমরা সফল হয়েছি। সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও মাদকের স্থান বাংলাদেশে হবে না। আওয়ামী লীগ সরকার উন্নয়ন, গণতন্ত্র ও দেশবিরোধী অপশক্তির মূলোৎপাটন করতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। আমি বিশ্বাস করি, এ দেশের শান্তিপ্রিয় জনগণ উন্নয়ন ও অগ্রগতির পথে এগিয়ে গিয়ে বাংলাদেশকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় প্রতিষ্ঠিত করবে।

বাংলাদেশ এখন বিশ্বে উন্নয়নের ‘রোল মডেল’ উল্লেখ করে ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া বলেন, বিএনপি-জামাত জোট সরকারের অপশাসন, দমন-পীড়নের বিরুদ্ধে আন্দোলন এবং অগণতান্ত্রিক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সকল ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ২০০৮ সালে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জনগণের ভোটে পুনরায় বিজয় অর্জন করে। আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার গত সাড়ে ১০ বছরে দেশের কৃষি, শিক্ষা, স্বাস্থ্য যোগাযোগ, তথ্য-প্রযুক্তি, অবকাঠামো, বিদ্যুৎ, গ্রামীণ অর্থনীতির উন্নয়ন, কূটনৈতিক সাফল্য ও সহযোগিতা বৃদ্ধিসহ প্রতিটি খাতে ব্যাপক উন্নয়ন সাধন করে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। গত অর্থবছরে জিডিপি প্রবৃদ্ধি দাঁড়িয়েছে ৭.৮৬ শতাংশে। এবার হবে ৮ ভাগের উপরে। দারিদ্র্যের হার কমে এখন ২১ শতাংশ। মানুষের আয় ও ক্রয়ক্ষমতা বেড়েছে। মাথাপিছু আয় ১ হাজার ৯০৯ মার্কিন ডলার। দেড় কোটি মানুষের কর্মসংস্থান হয়েছে। ৫ কোটির বেশি মানুষ নিম্ন আয়ের স্তর থেকে মধ্যম আয়ের স্তরে উন্নীত হয়েছে। বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, এগিয়ে যাবে।

এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা জেলা আওয়ামীলীগ সাধারন সম্পাদক ও সাবেক রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক মুজিব। এছাড়াও আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ-সংগঠনের হাজার হাজার নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

মতামত