দপ্তর সম্পাদক পদে ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়ার পদোন্নতিতে আনন্দ মিছিল

আবদুল আউয়াল জনি, সিটিজি ভয়েস টিভি:

দলের জন্য ত্যাগ, সততা ও কর্মনিষ্ঠার কারণে সাথে দলের জন্য কাজ করে যাওয়ার কারণে ঐতিহ্যবাহী রাজনৈতিক দল বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের ২১তম জাতীয় সম্মেলনে চট্টগ্রামের সাতকানিয়া-লোহাগাড়ার কৃতি সন্তান ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়াকে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক নির্বাচিত করায় বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে কৃতজ্ঞতা ও অভিনন্দন জানিয়ে ২৪ ডিসেম্বর মঙ্গলবার বিকাল ৪টায় মিছিল ও সমাবেশ করেছে সাতকানিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ ও ছাত্রলীগ সহ বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠন।

সাতকানিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি জাফর আলমের সভাপতিত্বে আনন্দ র‍্যালী ও সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি ও সাতকানিয়া পৌর মেয়র মোহাম্মদ জোবায়ের।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কাঞ্চনা ইউপি চেয়ারম্যান রমজান আলী, কেঁওচিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মনির হোসেন, উপজেলা আওয়ামীলীগ সদস্য আবুল কালাম, রূপকুমার নন্দী খোকন, রেজাউল করিম, উপজেলা যুবলীগ সভাপতি এ.কে.এম আসাদ, সাধারণ সম্পাদক আবদুল গফুর, উপ-প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক মামুনুল হক।

উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা মো: এনামুল হকের সঞ্চালনায় আর বক্তব্য রাখেন উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি সাইফুল ইসলাম সুমন, সাধারণ সম্পাদক নবাব মিয়া রকিব।

এসময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামীলীগ নেতা মোজাম্মেল হক লিটন, কামরুজ্জামান, মামুনুর রশিদ, পৌর কাউন্সিলর সাইফুদ্দিন দুলাল, নুরুল হক নুরুল্লাহ, উপজেলা যুবলীগ নেতা মো: সেলিম, মামুন, পৌর যুবলীগের সহ সভাপতি নাজিম উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক আজিম উদ্দিন, জাহিদুল ইসলাম, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক আবু ছালেহ শান, দক্ষিণজেলা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি মো: জুনায়েদ, পৌর ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক আয়াছ উদ্দিন, ছাত্রনেতা আরিফুল ইসলাম, আরিফুদ্দিন সাজ্জাদ ও আরমান প্রমুখ।

সমাবেশ শেষে এক বিশাল র‍্যালী সাতকানিয়া উপজেলা ও পৌরসভার প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে পোষ্ট অফিস মোড়ে নেতাকর্মীদের মিষ্টি মুখ করার মধ্য দিয়ে শেষ হয়।

উল্লেখ্য: আওয়ামী লীগের ২০তম জাতীয় সম্মেলন শেষে গত ২০১৬ সালের ২৯ আগস্ট ঘোষিত আওয়ামী লীগের ৮১ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে সদস্য মনোনীত হয়েছিলেন ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া। এরপর ২০১৬ সালের ৬ই নভেম্বর আবারও পান চমক, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য পদ থেকে পদোন্নতি পেয়ে হন আওয়ামী লীগের উপ দপ্তর সম্পাদক, এর পাশাপাশি চলতি বছরের ৪ঠা মার্চ ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়াকে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়। এরপর সাফল্যের খাতায় যুক্ত হল আরো একটি পালক, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ২১তম সম্মেলনে পদোন্নতি পেয়েছেন দপ্তর সম্পাদক পদে। আর এই ঘোষণা চট্টগ্রামবাসীর জন্য বড় ধরনের চমকের পাশাপাশি তারুণ্যদীপ্ত মেধাবী নেতৃত্বের প্রতি দলীয় প্রধান শেখ হাসিনার সদিচ্ছা ও নির্ভরতার একটি বড় উদাহরণ বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। আগামীর রাজনীতি হবে সততা, মেধা ও জ্ঞাননির্ভর- ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়ার এই পদোন্নতি সেটিরই ইঙ্গিত।

প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারি হওয়ার পর ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া একদিকে প্রধানমন্ত্রীর সাথে কাজ করেন অন্যদিকে প্রতিদিন প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে তার রাজনৈতিক কার্যালয়ে সারাদেশ থেকে আসা আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের সমস্যা শুনেন ও সমাধানে আন্তরিকভাবে চেষ্টা করেন। তার রাজনৈতিক দূরদর্শীতায় মুগ্ধ হয়ে দলের সভানেত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক পদে পদোন্নতি দিয়েছেন বলে মনে করেন তৃনমূল নেতাকর্মীরা।

মতামত