ত্রাণ ও ইফতার সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করলেন এমপি নদভী

সিটিজি ভয়েস টিভি ডেস্ক:    

মহামারি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে লকডাউন পরিস্থিতিতে কর্মহীন হয়ে যাওয়া হতদরিদ্র, শ্রমিক, দিনমজুর ও খেটে খাওয়া মানুষের মাঝে নিজস্ব হতবিল থেকে ও আল্লামা ফজলুল্লাহ ফাউন্ডেশনের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় একটি পৌরসভাসহ সাতকানিয়া-লোহাগাড়ার ২১ ইউনিয়নের একুশ হাজার দুঃস্থ-দরিদ্র পরিবার এবং এক হাজার আলেম-ওলামা, ইমাম-মোয়াজ্জিন ও মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের জন্য সর্বমোট ২২০০০/-(বাইশ হাজার) প্যাকেট ত্রাণ ও ইফতার সামগ্রী বিতরণ কর্মসূচি শুরু করেছেন চট্টগ্রাম- ১৫ সাতকানিয়া-লোহাগাড়া আসনের সংসদ সদস্য প্রফেসর ড.আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী।

২৩ এপ্রিল বৃহস্পতিবার এই বিতরণ কার্যক্রমের সূচনা করেন তিনি। প্রথম সপ্তাহে ইউনিয়ন ভিত্তিক ১৫ হাজার পরিবারের মাঝে এই ত্রাণ ও ইফতার সামগ্রীর প্যাকেট বিতরণ করা হবে। এভাবে পর্যায়ক্রমে এসব ত্রাণ ও ইফতার সামগ্রীর প্যাকেট ভূক্তভোগীদের মাঝে বিতরণ করা হবে।

উল্লেখ্য, প্রতিবছর মাহে রমজানে সাংসদ প্রফেসর ড. আবু রেজা নদভী প্রতিষ্ঠিত এনজিও সংস্থা আল্লামা ফজলুল্লাহ ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনায় সাতকানিয়া-লোহাগাড়ার আর্ত-পীড়িত, আলেম-ওলামা, ইমাম-মোয়াজ্জিন ও মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের মাঝে খাদ্য ও ইফতার সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

ত্রাণ ও ইফতার কার্যক্রম বিতরণ কার্যক্রমের সূচনাকালে উপস্থিত ছিলেন, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামীলীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক গোলাম ফারুর ডলার, সাতকানিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফয়েজ আহমদ লিটন, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক সাবেক চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সরওয়ার উদ্দিন চৌধুরী, সাংসদের একান্ত সচিব ও সাতকানিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য এরফানুল করিম চৌধুরী, লোহাগাড়া উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা এইচ এম গণি সম্রাট, সাতকানিয়া উপজলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক চেয়ারম্যান আ.ন.ম সেলিম চৌধুরী, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মোছলেম আহমদ, লেয়াকত আলী, লোহাগাড়া উপজেলা যুবলীগ নেতা সাইফুল হাকিম, সাতকানিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আব্দুল মান্নান প্রমুখ।

বৃহস্পতিবার নলুয়া ইউনিয়নে বিতরণ কার্যক্রম পরিচালিত হয়। এমপি ড. নদভী’র পক্ষে ত্রাণ ও ইফতার সামগ্রীর প্যাকেট বিতরণ করেন নলুয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান তসলিমা বেগম, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আহমদ মিয়া, উপজেলা যুবলীগের কার্যনির্বাহী সদস্য এটিএম সাইফুল প্রমুখ।

এছাড়া করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব থেকে সাতকানিয়া-লোহাগাড়ার সর্বসাধারণকে সুরক্ষা দিতে নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাওয়া উভয় উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারী, উভয় সরকারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক, নার্স ও কর্মচারী এবং উভয় থানার পুলিশ সদস্যবৃন্দসহ সাতকানিয়া-লোহাগাড়ার বেশ কিছু বেসরকারি ক্লিনিক সমূহের ডাক্তার, নার্স ও কর্মচারীদের স্বাস্থ্যঝুঁকির কথা বিবেচনা করে সংসদ সদস্য প্রফেসর ড.আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী ২৩ এপ্রিল বিকেল চারটায় নতুন করে আরো দুই হাজার সার্জিক্যাল মাস্ক, (একহাজার দেশী, একহাজার বিদেশী) দুইশত পিপিই ও গ্লাভস ( Personal Protective Equipment) প্রদান করছেন।

উল্লেখ্য, করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রনালয় কর্তৃক সাতকানিয়া-লোহাগাড়া উপজেলার দুঃস্থ-দরিদ্র, নিম্ন আয়ের মানুষ, কর্মহীন দিনমজুর, রিক্সা চালক, ভ্যান চালকসহ অসহায় মানুষদের জন্য বরাদ্দকৃত জি.আর চাল, জি.আর ক্যাশ, শিশু খাদ্য বাবদ নগদ অর্থ পৌরসভাসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের ওয়ার্ডভিত্তিক তালিকা প্রণয়ন করে পৌঁছিয়ে দেওয়া হচ্ছে প্রতিদিন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের তত্বাবধানে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও মেম্বারগণ প্রান্তিক খেটে খাওয়া অসহায় মানুষদের ঘরে ঘরে গিয়ে ত্রাণ সামগ্রী পৌঁছিয়ে দিচ্ছেন। বরাদ্দকৃত ত্রাণ সামগ্রী সঠিক ভাবে বিভাজন ও বিতরণ হচ্ছে কিনা তা নিজস্ব প্রতিনিধির মাধ্যমে তদারকি করছেন প্রফেসর ড.আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী এমপি।

মতামত