আশুগঞ্জে ১১ দোকান সিলগলা, ১৫ নারী ক্রেতাকে আর্থিক জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত

সিটিজি ভয়েস টিভি ডেস্ক:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে চলমান করোনা পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি না মেনে দোকান খোলা রাখায় অভিযান চালিয়ে ১১টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সিলগালা করে দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় ২০টি বিপনী বিতানকে ও ১৫ জন নারী ক্রেতাকে আর্থিক জরিমানা করা হয়েছে। 

শনিবার (১৬ মে) সকাল থেকে বিকেলে পর্যন্ত উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফিরোজা পারভীনের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত এ অভিযান পরিচালনা করে।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে অভিযান শুরুর পর পরই দোকানপাট বন্ধ করে দেয় ব্যবসায়ীরা। অনেক ব্যবসায়ী ক্রেতাদের দোকানের ভিতরে রেখেই লাইট বন্ধ করে দিয়ে বাহিরে তালা লাগিয়ে দেয়। পরে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফিরোজা পারভীন দোকানের তালা খুলে ভিতরে ক্রেতা দেখতে পান। দোকান বন্ধ না থাকায় অন্তত ২০টি দোকানকে ১০ থেকে ৭ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়।

অভিযানকালে ঈদের শপিং করতে এসে বিভিন্ন দোকানে বসে থাকা ও সড়কে হাঁটাচলা অবস্থায় ১৫ জন নারী ক্রেতাকে জরিমানা করা হয়েছে। এ অভিযানে মোট ১ লক্ষ ১৮ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।

অভিযানে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় শহরের পশ্চিম বাজারে কাপড়ের দোকান নুসরাত ফ্যাশন, নূর টেইলার্স এন্ড ক্লথ স্টোর, সুরভী টেইলার্স, জুতার দোকানের মধ্যে রীনা সুজ, নাদিয়া সুজ, রিয়া সুজ, পপুলার সুজ, জয় সুজ, নিহা সুজ, এক্সসিলেন্স সুজ ও মধ্য বাজারে তৈরী পোষাকের দোকান অপূর্ব ফ্যাশনকে সিলগালা করে দেয়া হয়েছে।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফিরোজা পারভীন জানান, স্বাস্থ্যবিধি না মেনে বিপনী বিতান পরিচালনা করায় বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান সিলগালা ও জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া নারী ক্রেতাদের আর্থিক জরিমানা করা হয়েছে। এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

মতামত