মাধবদীতে অনাহারী ও পথ শিশুদের মাঝে ইফতার বিতরণ করল খেলাঘর

মোঃ আল আমিন, নরসিংদী প্রতিনিধি:

“আসুন এক সাথে বাঁচি” এ শ্লোগানকে সামনে নিয়েই জাতীয় শিশু কিশোর সংগঠনের মাধবদী শাখা অঞ্চলের “খেলাঘর” এর কর্মী ও সুহৃদের উদ্যোগে “একবেলা অন্ন” কর্মসূচীর ১০ তম পর্বে গতকাল ১৮ মে সোমবার বিকেলে মাধবদী পৌর এলাকার প্রায় দুইশতাধিক গরীব অনাহারী পরিবার সহ শতাধিক পথ শিশুদের মাঝে ইফতার বিতরণ করেন।

এসময় কর্মসূচীতে অংশ গ্রহন করেন খেলাঘর কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এম মাহামুদুল হাসান, জাতীয় পরিষদ সদস্য শহিদুল্লাহ পিয়াস, জাতীয় পরিষদ সদস্য নূর হুমায়রা আহমেদ পিংকি, নক্ষত্র খেলাঘর আসরের ক্রীড়া সম্পাদক তানভীর আহম্মদ, ধ্রুবতারা খেলাঘর আসরের যুগ্ম আহবায়ক আলিমুল হক বাপ্পি, কার্যকরী সদস্য অনিতা শেখ প্রমূখ।

সারাদেশে করোনা ভাইরাসের প্রদুর্ভাবে লকডাউন শুরু হলে বেকার হয়ে পড়ে মাধবদী সহ দেশের খেঁটে খাওয়া সাধারন মানুষ। এসব অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে খেলাঘর মাধবদী অঞ্চলের পাঁচটি খেলাঘর আসর যথাক্রমে নক্ষত্র খেলাঘর আসর, ধ্রুবতারা খেলাঘর আসর, অরুনিমা খেলাঘর আসর, শিশুকানন খেলাঘর আসর ও আনন্দধারা খেলাঘর আসরের যৌথ উদ্যোগে শুরু হয় এ কার্যক্রম। খেলাঘরের ভাইবোন, কর্মী সদস্য এবং অভিভাবকগন সম্মিলিত ভাবে এবং এলাকার সামর্থবানদের সহায়তায় পরিচালিত হচ্ছে এ কার্যক্রম। রমজান মাসে এ পর্যন্ত দশ বার ইফতার সহ তৈরী খাদ্য বিতরন করা হয়।

“আসুন একসাথে বাঁচি” খেলাঘর মাধবদী অঞ্চলের এ শ্লোগানকে প্রতিপাদ্য করেই খেলাঘর কর্মী ও সুহৃদরা প্রতিদিন নিজেদের বাসা থেকে সাধ্যমত খাবার তৈরী করে তুলে দিচ্ছে খেলাঘরের নিবেদিত সৈনিকদের হাতে। এসব খাবার একত্র করে প্রতিনিয়ত তারা পৌঁছে যায় ক্ষুধার্থ অনাহারী মানুষের কাছে। খেলাঘরের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এবং নক্ষত্র খেলাঘর আসরের সাধারন সম্পাদক এম মাহামুদুল হাসান বলেন, দেশে করোনা মহামারি চলাকালিন সময় পর্যন্ত তারা সাধ্যমত এ কর্মসূচী চলমান রাখতে চান। তিনি সারা দেশের সকল বিত্তবান মানুষদেরকে তার নিজের আশেপাশের গরীব অসহায় মানুষের প্রতি সহায়তার পরম হাত বাড়িয়ে দিতে উদাত্ত আহবান জানান।

মতামত