চট্টগ্রামে একদিনে আক্রান্তের সর্বোচ্চ রেকর্ড শনাক্ত হলো ২১৫ জন করোনা রোগী

সিটিজি ভয়েস টিভি ডেস্ক:

গেল ২৪ ঘন্টায় (বুধবার) চট্টগ্রামে ৬০২ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ২১৫ জনের দেহে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ পাওয়া গেছে। নতুন আক্রান্তদের  মধ্যে চট্টগ্রাম মহানগরের ১৮২ জন এবং উপজেলার ৩৩ জন।

বুধবার  (২৭ মে) রাতে চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি এসব তথ্য জানান। তিনি জানান,  গত ২৪ ঘন্টায়  বিআইটিআইডি’তে  ২০৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৩৮ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে ৩৭ জনই চট্টগ্রাম মহানগরের বাসিন্দা। একজন উপজেলা পর্যায়ের রোগী।

দৈনিক পূর্বকোণে নতুন করে আরও একজন আক্রান্ত হয়েছেন । তিনি ৪২ বছর বয়সী এক ফটো সাংবাদিক। মঙ্গলবার (২৬ মে) ওই পত্রিকার বার্তা বিভাগের এক জ্যেষ্ঠ সাংবাদিকের শরীরেও করোনার জীবাণু মিলেছিল। এছাড়া এই ল্যাবের রিপোর্টে  চট্টগ্রাম কাস্টমসের পাচঁজনের করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) সংক্রমন  শনাক্ত হয়েছে।

ডা. সেখ ফজলে রাব্বি জানান, চমেক হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে ২৫৯ টি  নমুনা পরীক্ষা করে ১৩৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ১২৯ জনই চট্টগ্রাম মহানগরের রোগী। বাকি ৯ জন উপজেলার বাসিন্দা। এই ল্যাবে নতুন শনাক্ত হওয়া করোনা রোগীদের ৬ জনই চিকিৎসক বলে জানা গেছে।

এছাড়া ভেটেইনারি বিশ্ববিদ্যালয়ের (সিভাসু) ল্যাবে ১০০ টি  নমুনা পরীক্ষা করে  ৩৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ১৬ জন চট্টগ্রাম মহানগরের বাসিন্দা। ২০ জন চট্টগ্রামের বিভিন্ন    উপজেলার বাসিন্দা।

এছাড়া, কক্সবাজার মেডিকেলে  চট্টগ্রাম জেলার ৩৪ টি নমুনা পরীক্ষা করে ৩ জন করোনা  আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। নতুন তিনজন রোগীই উপজেলার।

নতুন আক্রান্ত হওয়া ২১৫ জন নিয়ে চট্টগ্রামে  মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ২২০০ জনে।

এখন পর্যন্ত চট্টগ্রাম জেলায় সর্বমোট করোনা আক্রান্তের ৭৯ শতাংশই মহানগরের বাসিন্দা। ২১ শতাংশ রোগী উপজেলার বাসিন্দা।

চট্টগ্রামে বর্তমানে ফৌজদারহাটস্থ  বিআইটিআইডি, ভেটেইনারী বিশ্ববিদ্যালয়              ( সিভাসু), চমেক ল্যাব, কক্সবাজার মেডিকেল  কলেজসহ চারটি ল্যাবে করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে।

সিভিল সার্জন কার্যালয়ের গতকালের তথ্য অনুযায়ী  ,  চট্টগ্রামে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে সর্বমোট সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৯১ জন। গেল ২৪ ঘন্টায় ৯ জন করোনা আক্রান্ত রোগীর সুস্থ  হয়েছে। গেল ২৪ ঘন্টায় ২ জন করোনা আক্রান্ত রোগী মৃত্যুবরন করেছে চট্টগ্রামে।  এখন পর্যন্ত চট্টগ্রামে  করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরন করেছে চট্টগ্রামের ৬১ জন। আক্রান্তের উপাত্ত অনুযায়ী গড়  সুস্থতার হার ১০% এবং মৃত্যুর হার ৩%।

চট্টগ্রাম জেলায় বিভিন্ন হাসপাতালে   আইসোলেশনে আছেন ২৩১ জন। এছাড়া ৩৫৭ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন।

আক্রান্তের উপাত্ত বিশ্লেষণের পর দেখা যায় চট্টগ্রামের আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে ৫১ শতাংশই   ২১ থেকে ৪০ বছর বয়সী। মঙ্গলবার  পর্যন্ত ২১-৩০ বয়সী আক্রান্ত রোগী মোট আক্রান্তের  ২৭ %  ।

প্রসঙ্গত, এপ্রিলের  ৩ তারিখে মাত্র একজন রোগী শনাক্ত হওয়ার পর ৫৪ দিনের মাথায় বুধবার      চট্টগ্রামের চারটি ল্যাবে একদিনে শনাক্ত হয় ২১৫ জন করোনা আক্রান্ত রোগী । এ নিয়ে এখন মোট আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ২২০০ জন। এদের ১৫০৪ জন পুরুষ এবং ৪৮১ জন নারী।

এখন পর্যন্ত  আক্রান্তের জন  ১৭৪৭ চট্টগ্রাম নগরীর বাসিন্দা। এছাড়া ৪৭৯  জন চট্টগ্রামের বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা। এর মধ্যে সাতকানিয়া উপজেলায় ৪০ জন করোনা আক্রান্ত  রোগী   রয়েছে। পাশ্ববর্তী উপজেলা লোহাগাড়ায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪৯ জন। সীতাকুণ্ড উপজেলায় ৭২ জন, বোয়ালখালীতে ২২ জন, পটিয়ায় ৭২ জন, আনোয়ারায় ৯ জন,  চন্দনাইশে ২৭ জন, রাঙ্গুনিয়ায় ৩৬ জন, বাঁশখালীতে ২৫ জন,  রাউজানে ১৬ জন,  ফটিকছড়িতে ৬ জন, মিরসরাই এ ৯ জন, হাটহাজারীতে ৮০, স্বন্দ্বীপে ১৬ জন করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন।

মতামত