সাতকানিয়ায় আরো দুই ইটভাটা উচ্ছেদ, ১৫ লাখ টাকা জরিমানা

সিটিজি ভয়েস টিভি ডেস্ক:

পরিবেশগত ছাড়পত্র ও ইট পোড়ানোর লাইসেন্স না থাকায় চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় অভিযান চালিয়ে দুইটি অবৈধ ইটভাটা উচ্ছেদ করা হয়েছে। এছাড়া অভিযানে সাতটি ইটভাটাকে মোট ১৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার (৭ জানুয়ারি) দিনব্যাপী অভিযান চালিয়ে এসব ইটভাটা উচ্ছেদ করা হয়।

অভিযানে নেতৃত্ব দেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট গালিব চৌধুরী। অভিযানে পরিবেশ অধিদফতরের পক্ষে চট্টগ্রাম জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আফজারুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ, র‍্যাব-৭ এবং ফায়ার সার্ভিস অভিযানে সহযোগিতা করে।

অনুমোদনবিহীন কার্যক্রম পরিচালনার অভিযোগে অভিযান চালিয়ে সাতকানিয়া উপজেলার এওচিয়া ইউনিয়নে ১২০ ফুট চিমনিবিশিষ্ট দুইটি ইটভাটা ভেঙ্গে গুঁড়িয়ে দেয়া হয়। উচ্ছেদ করা ইটভাটাগুলো হলো- মেসার্স এএসসি ব্রিকস ফিল্ড ও মেসার্স হাজী দানু মিয়া ব্রিকস।

এছাড়াও সাতটি ইটভাটাকে মোট ১৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এরমধ্যে মেসার্স বিসমিল্লাহ ব্রিকসকে ১ লাখ ৫০ হাজার, মেসার্স মা ব্রিকসকে ১ লাখ ৫০ হাজার, হযরত আলী (র.) ব্রিকসকে ১ লাখ ৫০ হাজার, মেসার্স খাজা ব্রিকসকে ১ লাখ ৫০ হাজার, কাজী এম ব্রিকসকে ৫ লাখ, থ্রী স্টার ব্রিকসকে ২ লাখ ও জামাল ব্রিকস ম্যানুফ্যাকচারকে ২ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

পরিবেশ অধিদফতর চট্টগ্রাম জেলার উপ-পরিচালক জমির উদ্দিন সিটিজি ভয়েস টিভিকে জানান, পরিবেশগত ছাড়পত্রবিহীন ও ইট পোড়ানোর লাইসেন্সবিহীন অবৈধ ইটভাটার বিরুদ্ধে অভিযানের অংশ হিসেবে বুধবার ও বৃহস্পতিবার ২ দিনে সাতকানিয়ায় পাঁচটি ইটভাটা উচ্ছেদ করা হয়েছে। আটটি ইটভাটাকে মোট ১৭ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট গালিব চৌধুরী জানান, ইটভাটাগুলোর পরিবেশগত ছাড়পত্র ও জেলা প্রশাসনের লাইসেন্স নেই। কৃষি জমি ও পাহাড় থেকে মাটি নিয়ে ইট উৎপাদন করে আসছিল। আগামীতেও হাইকোর্টের নির্দেশনা অনুযায়ী চট্টগ্রাম জেলার সকল অবৈধ ইটভাটা উচ্ছেদে অভিযান চলমান থাকবে।

উল্লেখ্য চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলায় ৬৭টি ইট ভাটা থাকলেও অধিকাংশের নেই পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র, অবৈধ ভাবে পরিচালিত হয়ে আসছিল ইট ভাটা গুলো, উপজেলার কেরাণীহাট থেকে মৌলভীর দোকান পর্যন্ত এলাকায় অনেকগুলো জিগজাগ ইট ভাটা থাকলেও সেগুলোর অধিকাংশের নেই পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র, এছাড়াও উপজেলার নাপিতের চর, কলেজ রোড, মিটাদীঘি, লটমনি চুড়ামনি সহ বিভিন্ন এলাকায় অবস্থিত পরিবেশ বিনষ্টকারী অবৈধ ইঁট ভাটা গুলোতে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে গুড়িয়ে দেওয়ার আহবান জানিয়েছেন এসব এলাকার সাধারণ মানুষেরা।

মতামত