৬০ বছরের উর্ধ্বে এবং ১৮ বছরের নিচে কেউ যেতে পারবে না হজ্বে: সৌদি সরকারের নির্দেশনা

সিটিজি ভয়েস টিভি ডেস্ক:

বৈশ্বিক মহামারী করোনা ভাইরাস সংক্রমণের পরিস্থিতি বিবেচনায় চলতি বছর ৬০ বছরের উর্ধ্বে এবং ১৮ বছরের নিচে কেউ হজ্ব পালন করতে যেতে পারবেন না। করোনা পরিস্থিতি সহনীয় পর্যায়ে রাখার পাশাপাশি মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় জমায়েত সংক্রমণ মুক্ত রাখতে এ বিষয়ে কঠোর অবস্থান গ্রহণ করেছে সৌদি সরকার।

সৌদি আরবের হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে সেদেশের পত্রিকা ‘ওকাজ’ জানায়, চলতি বছর যারা হচে যেতে ইচ্ছুক তাদের সৌদি আরবে পৌঁছানোর অন্তত এক সপ্তাহ আগে করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিতে হবে। সৌদি আরবে অবতরণের ৭২ ঘণ্টা আগে করা কোভিড-১৯ পিসিআর টেস্টের নেগেটিভ রিপোর্টও সঙ্গে রাখতে হবে এবং সৌদি আরবে আসার পর ৭২ ঘণ্টা কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।

জানা গেছে, দেশটির হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী প্রতিটি গ্রুপ হবে ১০০ জনের। সৌদিতে গিয়ে আবার পিসিআর টেস্ট করতে হবে এবং নেগেটিভ রিপোর্ট আসার পর কোয়ারেন্টিন শেষ করতে হবে।

হজের সময় স্বাস্থ্য প্রটোকল প্লান অনুযায়ী হাজী এবং হজের কর্মীরা আলাদা ব্যাজ পরিধান করবেন। পাশাপাশি পরস্পরের মাঝে অন্তত দেড় মিটার দূরত্ব রাখতে হবে বলে সৌদি সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

৬০ বছরের বেশি বয়সীদের হজে যেতে নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে বাংলাদেশের ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান বলেছেন, আনুষ্ঠানিকভাবে আমরা এখনো এ বিষয়ে কিছু জানি না। জানার পর ব্যবস্থা নেয়া হবে। তিনি বলেন, হজ নিয়ে এখনও সৌদি সরকারের সাথে চুক্তি হয়নি। এবার কতজন হজে যেতে পারবে তা নিয়ে আলোচনার চেষ্টা চলছে। তবে যদি ষাটোর্ধ্ব কেউ হজে যেতে না পারে, তবে ওই বয়সী আবেদনকারীদের জমা দেয়া টাকা তুলে নেয়ার ক্ষেত্রে সহায়তা করবে মন্ত্রণালয়।

মতামত